নতুন মোবাইল ফোন 2024। 2024 সালের সেরা মোবাইল ফোন গুলো কি কি

 

2024 সালের সেরা পাঁচটি মোবাইল যা আপনাদেরকে অনেক আকৃষ্ট করবে। যা 2024 সালের বাজারে সর্বশেষ ও মোবাইল হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে। যে মোবাইল ফোনগুলোতে রয়েছে স্ট্যান্ডার্ড ডিজাইন এবং হাই কনফিগারেশনের ফিচার। তাই আজকে 2024 সালে টপ ফাইভ মোবাইল ফোন নিয়ে আমি হাজির হয়েছি আপনাদের মাঝে। পছন্দ অনুযায়ী আপনাদের মধ্যে কোন মোবাইল ফোনটি সবচেয়ে সেরা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।


  • সামসাং গ্যালাক্সি s23 আলট্রা 
  • আপল আইফোন 40 প্রো ম্যাক্স 
  • গুগল পিক্সেল 7 প্রো 
  • শাওমি 12s আল্ট্রা 
  • অপ্পো ফাইন্ড এক্স 5 প্রো  

২০২৪ সালের সেরা ৫টি মোবাইল

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা

দুর্দান্ত মোবাইলের মধ্যে সামসাং গ্যালাক্সি s20 আলট্রা মোবাইলটা আপনার জন্য কেমন হবে এবং সব ফিউচার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা হল ২০২৪ সালের সেরা মোবাইলগুলির মধ্যে একটি। এটি একটি শক্তিশালী প্রসেসর, একটি উচ্চ-মানের ক্যামেরা এবং একটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সহ একটি পূর্ণ বৈশিষ্ট্যযুক্ত ফোন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা হল স্যামসাংয়ের 2023 সালের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন। এটি S22 আল্ট্রার উত্তরসূরি এবং বেশ কিছু উন্নত বৈশিষ্ট্য নিয়ে আসে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা ডিজাইন

S23 আল্ট্রা S22 আল্ট্রার মতোই ডিজাইনে। এটিতে একটি 6.8 ইঞ্চি AMOLED ডিসপ্লে রয়েছে যা 120Hz রিফ্রেশ রেট সহ আসে। ডিসপ্লেটিতে Corning Gorilla Glass Victus+ প্রোটেকশন রয়েছে।

ফোনটিতে একটি স্যাটানাইজড অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম এবং একটি গ্লাস ব্যাক রয়েছে। ফোনটি IP68 জলরোধী এবং ধুলোরোধী।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা ক্যামেরা

S23 আল্ট্রায় একটি 200 মেগাপিক্সেল প্রধান ক্যামেরা, একটি 10 মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা, একটি 12 মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা এবং একটি 10 মেগাপিক্সেল প্রো-অ্যাকশন ক্যামেরা রয়েছে। ফোনটিতে একটি 40 মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে।

S23 আল্ট্রার ক্যামেরাগুলি পূর্ববর্তী মডেলের তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে উন্নত। 200 মেগাপিক্সেল প্রধান ক্যামেরা দুর্দান্ত ডিটেইল এবং রঙের সাথে উচ্চ-মানের ছবি তোলে। টেলিফটো ক্যামেরা 30x জুম পর্যন্ত অফার করে এবং আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা সুন্দর, ব্যাপক দৃশ্য ক্যাপচার করে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা পারফরম্যান্স

S23 আল্ট্রায় Qualcomm Snapdragon 8 Gen 2 প্রসেসর রয়েছে। এটি একটি শক্তিশালী প্রসেসর যা যেকোনো কাজের জন্য যথেষ্ট। ফোনটিতে 12GB RAM এবং 512GB পর্যন্ত স্টোরেজ রয়েছে।

S23 আল্ট্রা একটি দুর্দান্ত গেমিং ফোন। এটি গ্রাফিক্স-নিবিড় গেমগুলিও সহজেই চালাতে পারে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা ব্যাটারি

S23 আল্ট্রায় একটি 5000 mAh ব্যাটারি রয়েছে। এটি একটি বড় ব্যাটারি যা এক চার্জে সারাদিন চলবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রার দাম

S23 আল্ট্রার দাম বাংলাদেশে শুরু হচ্ছে 1,24,999 টাকা থেকে।

মূল্যায়ন

স্যামসাং গ্যালাক্সি S23 আল্ট্রা একটি দুর্দান্ত ফোন। এটিতে একটি সুন্দর ডিসপ্লে, দুর্দান্ত ক্যামেরা, শক্তিশালী পারফরম্যান্স এবং একটি বড় ব্যাটারি রয়েছে। যদি আপনি একটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন খুঁজছেন, তাহলে S23 আল্ট্রা একটি দুর্দান্ত বিকল্প।

সুবিধা

  • সুন্দর ডিসপ্লে
  • দুর্দান্ত ক্যামেরা
  • শক্তিশালী পারফরম্যান্স
  • বড় ব্যাটারি

অসুবিধা

  • উচ্চ দাম

 

অ্যাপল আইফোন 14 প্রো ম্যাক্স

আপল আইফোন 14 ম্যাক্স প্রো দুর্দান্ত একটি মোবাইল এর প্রাইস সম্বন্ধে এবং বিস্তারিত ফিউচার সম্বন্ধে আলোচনা করা হলো 

অ্যাপল আইফোন 14 প্রো ম্যাক্স হল অ্যাপলের সর্বশেষ এবং সেরা প্রিমিয়াম স্মার্টফোন। এটি 6.7-ইঞ্চি সুপার রেটিনা XDR OLED ডিসপ্লে, এ16 বিয়োনিক চিপসেট, ট্রিপল-ক্যামেরা সিস্টেম এবং 4323 mAh ব্যাটারি সহ সজ্জিত।

আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সের ডিজাইনটি আইফোন 13 প্রো ম্যাক্সের মতোই। এটি একটি স্টিলের ফ্রেম এবং একটি টেম্পার্ড গ্লাস ব্যাক সহ একটি কাচের স্ক্রিন সহ আসে। তবে, আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সে একটি নতুন নকশা রয়েছে যা ডিসপ্লের উপরে একটি ছোট, গোলাকার "ডায়নামিক আইল্যান্ড" ক্যামেরা নচ রয়েছে।

আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সের ডিসপ্লেটি উজ্জ্বল এবং সুন্দর। এটি 120Hz রিফ্রেশ রেট সহ আসে, যা আপনাকে মসৃণ এবং তরল গ্রাফিক্স উপভোগ করতে দেয়।

আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সের এ16 বিয়োনিক চিপসেটটি সবচেয়ে শক্তিশালী চিপসেট যা আজ স্মার্টফোনে পাওয়া যায়। এটি আপনাকে যে কোনও অ্যাপ বা গেম চালাতে দেয় এবং আপনি যে কোনও কাজ করতে পারেন।

আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সের ট্রিপল-ক্যামেরা সিস্টেমটি সবচেয়ে অত্যাধুনিক ক্যামেরা সিস্টেম যা আজ স্মার্টফোনে পাওয়া যায়। এটি একটি 48MP প্রধান ক্যামেরা, একটি 12MP আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা এবং একটি 12MP টেলিফট ক্যামেরা সহ আসে। এটি অসাধারণ ছবি এবং ভিডিও ক্যাপচার করে।

আইফোন 14 প্রো ম্যাক্সের 4323 mAh ব্যাটারি আপনাকে এক দিনের বেশি ব্যবহার করতে দেয়। এটি একটি দ্রুত চার্জিং সিস্টেমও সহায়তা করে যা আপনাকে দ্রুত আপনার ফোন চার্জ করতে দেয়।

সামগ্রিকভাবে, অ্যাপল আইফোন 14 প্রো ম্যাক্স হল একটি অত্যাশ্চর্য স্মার্টফোন যা সবকিছুই করে। এটি একটি দুর্দান্ত ডিসপ্লে, একটি শক্তিশালী চিপসেট, একটি অত্যাধুনিক ক্যামেরা সিস্টেম এবং একটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সহ আসে। এটি একটি দুর্দান্ত পছন্দ যাদের একটি সেরা স্মার্টফোন প্রয়োজন।

অ্যাপল আইফোন 14 প্রো ম্যাক্স হল আরেকটি সেরা মোবাইল যা ২০২৪ সালের জন্য অফার করা হয়। এটি একটি উত্কৃষ্ট ডিজাইন, একটি শক্তিশালী প্রসেসর এবং একটি সুন্দর ক্যামেরা সহ একটি দুর্দান্ত ডিভাইস।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো

গুগল পিক্সেল 7 প্রো এর সকল ফিউচার এবং বাংলাদেশি প্রাইস সম্বন্ধে আলোচনা করা হলো  

গুগল পিক্সেল 7 প্রো হল একটি দুর্দান্ত ক্যামেরা ফোন যা ২০২৪ সালের জন্য পাওয়া যায়। এটি একটি শক্তিশালী প্রসেসর এবং একটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সহ একটি দুর্দান্ত ডিভাইস।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো হল গুগলের তৈরি একটি উচ্চ-মানের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন। এটি 2022 সালের অক্টোবর মাসে মুক্তি পায়।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো ডিজাইন 

পিক্সেল 7 প্রোতে একটি 6.7 ইঞ্চি OLED ডিসপ্লে রয়েছে যা 1440 x 3120 পিক্সেল রেজোলিউশন এবং 120Hz রিফ্রেশ রেট সমর্থন করে। ডিসপ্লেটি HDR10+ এবং LTPO সমর্থন করে, যা এটিকে আরও প্রাণবন্ত এবং সুনির্দিষ্ট রঙ প্রদান করে। ফোনটি একটি অ্যালুমিনিয়াম ফ্রেম এবং একটি গ্লাস ব্যাকপ্লেট দিয়ে তৈরি। এটি IP68 জলরোধী এবং ধুলোরোধী।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো ক্যামেরা

পিক্সেল 7 প্রোতে একটি ট্রিপল-ক্যামেরা সিস্টেম রয়েছে যা 50 মেগাপিক্সেল মূল ক্যামেরা, 12 মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা এবং 48 মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা দ্বারা গঠিত। মূল ক্যামেরাটি দুর্দান্ত দিনের আলোয় ছবি তোলে, এবং আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা প্রশস্ত দৃশ্যের জন্য দুর্দান্ত। টেলিফটো ক্যামেরা 3x অপটিক্যাল জুম প্রদান করে।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো সফ্টওয়্যার

পিক্সেল 7 প্রোতে অ্যান্ড্রয়েড 13 চালানো হয়। গুগল তার ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলিতে অ্যান্ড্রয়েডের একটি পরিশীলিত সংস্করণ সরবরাহ করে, যাতে বিভিন্ন উন্নত বৈশিষ্ট্য থাকে। উদাহরণস্বরূপ, পিক্সেল 7 প্রোতে একটি শক্তিশালী ক্যামেরা অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যা বিভিন্ন অটো-মোড এবং ফিল্টার প্রদান করে।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো পারফরম্যান্স

পিক্সেল 7 প্রোতে গুগল টেনসর জি 2 চিপসেট রয়েছে। এটি একটি শক্তিশালী চিপসেট যা উন্নত পারফরম্যান্স এবং শক্তি দক্ষতা প্রদান করে। ফোনটি দ্রুত এবং প্রতিক্রিয়াশীল, এবং এটি ভারী অ্যাপ্লিকেশন এবং গেমগুলি চালানোর জন্য উপযুক্ত।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো ব্যাটারি

পিক্সেল 7 প্রোতে 5003mAh ব্যাটারি রয়েছে। এটি একটি বড় ব্যাটারি যা ফোনটিকে এক দিনের ব্যবহারের জন্য চলতে দেয়। ফোনটি দ্রুত চার্জিং সমর্থন করে।

গুগল পিক্সেল 7 প্রো দাম

বাংলাদেশে গুগল পিক্সেল 7 প্রো-এর দাম 70,000 টাকা।

মূল্য মূল্যায়ন

গুগল পিক্সেল 7 প্রো একটি দুর্দান্ত ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন যা উচ্চ-মানের ক্যামেরা, শক্তিশালী পারফরম্যান্স এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ প্রদান করে। এটি একটি দুর্দান্ত পছন্দ যাদের একটি উচ্চ-মানের ফোন প্রয়োজন যা সবকিছু করতে পারে।

সুবিধা

  • উচ্চ-মানের ক্যামেরা
  • শক্তিশালী পারফরম্যান্স
  • দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ
  • অ্যান্ড্রয়েড 13 এর একটি পরিশীলিত সংস্করণ

অসুবিধা

  • উচ্চ দাম
  • কিছু ব্যবহারকারীদের জন্য ডিজাইনটি অপ্রীতিকর হতে পারে

 

শাওমি মি 12S আল্ট্রা

শাওমি s20 আলট্রা বাংলাদেশ প্রাইস এবং সকল ফিউচারস সহ বিস্তারিত বর্ণনা করা হলো 

 

২০২৪ সালের সেরা মোবাইল

শাওমি মি 12S আল্ট্রা হল একটি শক্তিশালী এবং সাশ্রয়ী মূল্যের ফোন যা ২০২৪ সালের জন্য পাওয়া যায়। এটি একটি শক্তিশালী প্রসেসর, একটি উচ্চ-মানের ক্যামেরা এবং একটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সহ একটি দুর্দান্ত ডিভাইস।

 

শাওমি মি 12S আল্ট্রা একটি হাই-এন্ড স্মার্টফোন যা 2022 সালের জুলাই মাসে লঞ্চ করা হয়েছিল। এটি শাওমির সর্বোচ্চ-শেষ মডেল এবং এতে শক্তিশালী হার্ডওয়্যার, উচ্চ-মানের ক্যামেরা এবং একটি আশ্চর্যজনক ডিসপ্লে রয়েছে।

শাওমি মি 12S আল্ট্রা ডিসপ্লে

শাওমি মি 12S আল্ট্রায় একটি 6.73-ইঞ্চি LTPO AMOLED ডিসপ্লে রয়েছে যা 1440 x 3200 পিক্সেল রেজোলিউশন এবং 120Hz রিফ্রেশ রেট সহ। ডিসপ্লেটি খুব উজ্জ্বল এবং উচ্চ-মানের রঙ প্রদর্শন করে।

শাওমি মি 12S আল্ট্রা পারফরম্যান্স

শাওমি মি 12S আল্ট্রায় একটি শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন 8+ জেন 1 চিপসেট রয়েছে যা দ্রুত পারফরম্যান্স এবং ভালো ব্যাটারি লাইফ প্রদান করে। ফোনটিতে 8 বা 12GB RAM এবং 256 বা 512GB স্টোরেজ রয়েছে।

শাওমি মি 12S আল্ট্রা ক্যামেরা

শাওমি মি 12S আল্ট্রার ক্যামেরা সিস্টেমটি তার সবচেয়ে বড় আকর্ষণ। এটিতে একটি 50-মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা, একটি 48-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং একটি 48-মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরা সিস্টেমটি দুর্দান্ত ছবি এবং ভিডিও ধারণ করে।

শাওমি মি 12S আল্ট্রা ব্যাটারি

শাওমি মি 12S আল্ট্রার ব্যাটারি 5,000mAh এবং 67W দ্রুত চার্জিং সমর্থন করে। ফোনটি একটি 4860mAh ব্যাটারি দিয়ে একটি সম্পূর্ণ দিন চলবে।

শাওমি মি 12S আল্ট্রা একটি দুর্দান্ত স্মার্টফোন যা শক্তিশালী হার্ডওয়্যার, উচ্চ-মানের ক্যামেরা এবং একটি আশ্চর্যজনক ডিসপ্লে অফার করে। এটি হাই-এন্ড স্মার্টফোন বাজারে একটি শক্তিশালী প্রতিযোগী।

 

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো 

অপ্পো 5 প্রো এর বাংলাদেশি প্রাইস এবং সকল ফিউচার সম্বন্ধে বর্ণনা করা হলো  

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো হল একটি দুর্দান্ত ডিভাইস যা ২০২৪ সালের জন্য পাওয়া যায়। এটি একটি শক্তিশালী প্রসেসর, একটি উচ্চ-মানের ক্যামেরা এবং একটি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সহ একটি দুর্দান্ত ডিভাইস।

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো ডিসপ্লে 

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো হল ওপ্পোর একটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন যা 2022 সালের মার্চ মাসে প্রকাশিত হয়েছিল। এটিতে একটি 6.7 ইঞ্চি কোর্নিংস গ্লাস ভিক্টাস-সজ্জিত AMOLED ডিসপ্লে রয়েছে যা 1440x3216 পিক্সেল রেজোলিউশন এবং 120Hz রিফ্রেশ রেট সহ। ফোনটিতে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন 8 জেন 1 চিপসেট, 12GB পর্যন্ত RAM এবং 512GB পর্যন্ত স্টোরেজ রয়েছে।

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো ক্যামেরা

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো-এর প্রধান আকর্ষণ হল এর ক্যামেরা সিস্টেম। এটিতে একটি 50-মেগাপিক্সেল প্রধান ক্যামেরা, একটি 50-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা এবং একটি 13-মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা রয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি হ্যাসেলব্লেড ক্যামেরা ফর মোবাইলের সাথে অংশীদারিত্বে তৈরি করা হয়েছে এবং এগুলি রাতেও দুর্দান্ত ফটো এবং ভিডিও ক্যাপচার করতে পারে।

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো ব্যাটারি

ফোনটিতে একটি 5000mAh ব্যাটারি রয়েছে যা 80W সুপারভিওসি ফ্ল্যাশ চার্জিং সমর্থন করে। এটিতে একটি 13-মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা এবং একটি 32-মেগাপিক্সেল লং ফর্ম ফ্যাক্টর সেলফি ক্যামেরা রয়েছে।

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো একটি উচ্চ-মানের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন যা দুর্দান্ত ক্যামেরা, শক্তিশালী হার্ডওয়্যার এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ অফার করে। এটি বাংলাদেশে বিক্রি হচ্ছে 1,89,990 টাকায়।

এখানে ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো-এর কিছু উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য রয়েছে:

  • 6.7 ইঞ্চি কোর্নিংস গ্লাস ভিক্টাস-সজ্জিত AMOLED ডিসপ্লে
  • কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন 8 জেন 1 চিপসেট
  • 12GB পর্যন্ত RAM
  • 512GB পর্যন্ত স্টোরেজ
  • 50-মেগাপিক্সেল প্রধান ক্যামেরা
  • 50-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড ক্যামেরা
  • 13-মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা
  • 5000mAh ব্যাটারি
  • 80W সুপারভিওসি ফ্ল্যাশ চার্জিং

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো-এর কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা নিচে দেওয়া হল:

সুবিধা:

  • দুর্দান্ত ক্যামেরা
  • শক্তিশালী হার্ডওয়্যার
  • দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ
  • আধুনিক ডিজাইন

অসুবিধা:

  • দাম বেশি
  • কিছু ব্যবহারকারীদের জন্য ডিসপ্লে খুব বড় হতে পারে

ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো কি আপনার জন্য সঠিক ফোন? এটি আপনার চাহিদা এবং বাজেট উপর নির্ভর করে। আপনি যদি একটি উচ্চ-মানের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন খুঁজছেন যা দুর্দান্ত ক্যামেরা, শক্তিশালী হার্ডওয়্যার এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ অফার করে, তাহলে ওপ্পো ফাইন্ড এক্স5 প্রো একটি দুর্দান্ত বিকল্প। তবে, যদি আপনি একটি কম দামে ফোন খুঁজছেন, তাহলে এটি আপনার জন্য সেরা পছন্দ নাও হতে পারে।

 

এই ফোনগুলি প্রতিটিই বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য এবং মূল্য পয়েন্ট অফার করে, তাই আপনার প্রয়োজনের জন্য সঠিক একটি খুঁজে পেতে আপনার গবেষণা করা গুরুত্বপূর্ণ।

 




Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url